v

আবার আসতে পেলে আটঘাট বেঁধে আসবো
এবারের মতো ভুলে যাবো না পারের কড়ি দূরের টিকেট
ঘরের চাবি; দুপায়ে দু'রকম জুতা, দেখা আর
লেখার চশমার বিভ্রাট আর নয়, নয় আর
টুথপেস্ট ভেবে ব্রাশে শেভিং ক্রিম মাখানো,
সখের হাড়িতে কেউটে সাপের বাচ্চা পোষা
আর নয়, কারো উপরোধে
বাসনার ঢেঁকি আমূল গিলে ফেলাও নৈব নৈব চ।
আবার আসতে পেলে পড়া মুখস্ত করে আসবো,
মঞ্চে উঠে ভুলে যাওয়া পার্ট আর নয়,
অন্যের ফেলে যাওয়া হার্ট ও আমার
ভালোবাসার ধন বলে কাঙালিপনা করবো না আর,
তার চেয়ে নিজের হৃদয়টাকে তরমুজের ফালি ক'রে
প্রাইস্ ট্যাগ লাগিয়ে হাজির করবো, ভাইরে,
কিরিচ আর কাটামুণ্ডু দুহাতে নিয়ে
আমিও দেখাবো ভয়, সাপের মুখে ব্যাঙ
হাসাবার উদ্ভট আশায়
ভুয়োদর্শী যুবা হওয়ার আহ্লাদ করবো না।
এবারের হাটে-হাটে হেনস্থা তো কম হলো না
কোমরের বেল্টে বাঁধা তোড়ার মানিক
কোন ফাঁকে লোপাট হয়ে গেল
হট্টগোলে পড়ে-পাওয়া চোদ্দআনা সামলাতে গিয়ে
হারালাম হাজার টাকার মূলধন, এবার এলে
একসাথে সাপ আর বেজির মুখে চুম্বন করার আর্ট
ঘুম আর সিঁদকাঠির সরল সমীকরণ
মুখস্ত করেই আসবো।
যদি আসি আগুন হয়ে আসবো তৃষ্ণার জল নয়
একসাথে হবো ছুরি আর ক্ষতের মলম
জিহ্বা থাকবে দুটো, ফেলে আসবো অপ্রসন্ন কলমের ভার
প্রেমে হবো চতুর কৃষ্ণ, যুদ্ধক্ষেত্রে মিথ্যুক অর্জুন
আবার আসতে পেলে তোমাদের
মিথ্যেবাদী বিদ্যালয়ে অনাচার্য হবো।

Rate this poem: 

Become a Patron!

Reviews

No reviews yet.